মুদফ ও মুদফ ইলাইহির দ্বিস্তরের সম্পর্ক

আমরা আগের পোস্ট থেকে জেনেছি দুটি ইসমের মধ্যে সাধারণত মালিকানার (সংশ্লিষ্টতার) সম্পর্ক বুঝানোর জন্য মুদফ ও মুদফ ইলাইহি বাক্যাংশ ব্যবহৃত হয়।  যে মালিক হয় তাকে বলে “মুদফ-ইলাইহি” مضاف اليه এবং যাকে/যেই বস্তুটি কারো মালিকানায় থাকে তাকে বলে মুদফ مضاف

আমরা আরো জেনেছি বাংলায় সাধারণত মুদফ ও মুদফ ইলাইহির মধ্যে একটি ” র ” এর সম্পর্ক পাওয়া যায়।  এই মুদফ ও মুদফ ইলাইহির মধ্যে ” র ” এর সম্পর্কটি দ্বিস্তরে হতে পারে যেখানে মাঝখানের শব্দটি একই সাথে মুদফ ও মুদফ ইলাইহির কাজ করে।কিছুটা নিচের এই ছবিটির মত :

মুদফ ইলাইহি

কিছু বাংলা উদাহরণের মাধ্যমে নিচের টেবিল থেকে বিষয়টা বুঝার চেষ্টা করি :

দ্বিস্তরের মুদফ ও
মুদফ ইলাইহি বাক্যাংশ
মুদফ ইলাইহিমুদফ/মুদফ ইলাইহিমুদফ
রাজশাহীর আমের স্বাদরাজশাহীরআমের স্বাদ
তার বন্ধুর মোটরসাইকেলতারবন্ধুর মোটরসাইকেল
মদিনার মাসজিদের সৌন্দর্য্যমদিনারমাসজিদের সৌন্দর্য্য
আমার কলমের কালিআমারকলমেরকালি

এখানে লক্ষ্যণীয় বিষয় হল মাঝখানের শব্দটি একই সাথে মুদফ এবং মুদফ ইলাইহির ভূমিকা পালন করছে। এখন পবিত্র কুরআন থেকে কিছু উদাহরণের মাধ্যমে বিষয়টা বুঝার চেষ্টা করি :

মুদফ ইলাইহিমুদফ/মুদফ ইলাইহিমুদফবাংলা অর্থদ্বিস্তরের মুদফ ও
মুদফ ইলাইহি বাক্যাংশ
كَرَبِّرَسُولُতোমার প্রভুর বার্তাবাহকرَسُولُ رَبِّكِ
الدِّينِيَوْمِ مَالِكِবিচারের দিনের মালিকمَالِكِ يَوْمِ الدِّينِ
كَرَبِّحُكْمِতোমার প্রভুর নির্দেশحُكْمِ رَبِّكَ
هِمْرَبِّأَمْرِতাদের প্রভুর আদেশأَمْرِ رَبِّهِمْ
هِرَبِّرَّحْمَةِতার প্রভুর করুণাرَّحْمَةِ رَبِّهِ
هِرَبِّاسْمَতার প্রভুর নামاسْمَ رَبِّهِ

error: Content is protected !!